শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর নাম।

কালো দাগ দুর করার ক্রিম খুজতে গিয়ে আমরা প্রায়ই সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগি। তাই, এ বিষয়ে, সন্দেহ দুর করার জন্য বাজারে প্রচলিত কিছু ক্রিম নিয়ে আলোচনা করব।

আপনার শরীরে যে কারণেই কালো স্পট তৈরি হোক না কেন, বিষয়টি থেকে মুক্তি লাভ কিন্তু ততটা সহজ নয়। সৌভাগ্যবশত, ওভার দি কাউন্টারে প্রচুর পরিমানে প্রোডাক্টস বিক্রি হচ্ছে – এই সমস্যা থেকে পরিত্রানের আশায়।

শরীরের স্কিনে কালো দাগ বিভিন্ন কারণে তৈরি হতে পারে। যে সব কারণে কালো স্পট তৈরি হয় তার উপর আরেকটি পোষ্টে আলোচনা করা হয়েছে।

বিষয়টি হল, আপনি যদি কোন সমস্য বা রোগের সঠিক কারণ অনুসন্ধান করতে পারেন, তাহলে তার সমাধান বা চিকিৎসা হবে সুনির্দিষ্ট এবং কার্যকর। আর যদি সঠিক কারণ অনুসন্ধানে কেউ ব্যর্থ হয়, তাহলে তা থেকে মুক্তি লাভ অনেকটাই দুরহ।

সাধারণত, স্কিনের নিচে যদি মেলানিন নামের পিগমেন্ট অতিরিক্ত মাত্রায় জমা হয়, তাহলে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। চর্মরোগ বিশেষজ্ঞগনের ধারণা মতে, অধিকাংশ ক্ষেত্রে এটি সূর্যালোকের সংস্পর্শ থেকে হয়ে থাকে।

কিন্ত, এর বাইরেও শরীরে কালো স্পট তৈরি হওয়ার পিছনে আরোও কিছু কারণ আছে। যেমন, acne, scars – এসব রোগ হলে এবং যদি আপনার দেহের হরমোন লেভেল পরিবর্তন হয়, তখনও এটি হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞগনের অভিমত।

শরীরের ত্বকে যে কোন প্রদাহজনিত কারণে এবং সেখানে চুলকানি বা irritation সৃষ্টি হলে, প্রায়শই এই অবস্থা দেখা দেয়।

এখানে কারণ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনায় যাচ্ছি না। মুল কথা হল, আপনাকে কারণ অনুসন্ধান করে সমাধানের পথ বেছে নিতে হবে। তাহলে, সময় ও অর্থ দু’টোরই সাশ্রয় হবে।

যাহোক, ত্বকের কালো দাগ দুর করার নামে বাজারে পণ্যের যথেষ্ট প্রাচুর্যতার ভিরে আপনার জন্য সঠিকটি খুজে নেওয়া সত্যিই কঠিন বিষয়। এমনটি এন্টি এজিং প্রোডাক্টও অনেক সময় এই ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হচ্ছে।

এজন্য, দেশ-বিদেশের বেশ কয়েকজন নামি-দামি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ি কালো দাগ দুর করার ক্রিমে কোন উপাদান কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে, তার সারাংশ এখানে তুলে ধরা হচ্ছে-

  • এন্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ উপাদান অথবা এমন কোন উপাদান যা প্রয়োগের ফলে আক্রান্ত ত্বকে দ্রুত exfoliation হয়। Exfoliation কথাটির অর্থ হল, যে পদ্ধতি ত্বকের কালো স্পটের কোষগুলিকে মরে যেতে সহায়তা করে যাতে নতুন কোষ প্রতিস্থাপনের সুযোগ তৈরি হয়।
  • অন্যান্য উপাদানের মধ্যে নিয়াসিনামাইড (ভিটামিন বি-৩), ল্যাকটিক এসিড, রেটিনল ইত্যাদি। রেটিনল খুব দ্রুত ক্ষতস্থানে নতুন কোষ গজাতে সহায়তা করে। রেটিনলের সাথে সাথে গ্লাইকোলিক এসিডও exfoliation কাজে সহায়তা করে। শরীরের ত্বক যদি রেটিনলের প্রতি সংবেদনশীল হয়, তখন স্বল্পমাত্রায় প্রয়োগ করতে হবে।
  • সংবেদনশীল ত্বকের জন্য কম irritation হয় এমন উপাদান যেমন tranexamic, azelaic acids, salicylic ইত্যাদি উপাদান প্রয়োগ করা যেতে পারে।
  • মৃদু কালো দাগের ক্ষেত্রে ভিটামিন সি অনেক সময় উপকারে আসে।

যদিও, ত্বকের কালো দাগ সাধারণত: তেমন ক্ষতিকর হয়না, তথাপি এর চিকিসকের পরামর্শ মতে ব্যবস্থা নিতে হবে। কারণ অনেক সময় এটি স্কিন ক্যানসারও হয়ে থাকতে পারে। সেক্ষেত্রে skin biopsy করে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর উপর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগন সচারাচর যে সব প্রোডাক্ট ব্যবহারে উৎসাহিত করেন, তার মধ্যে সবচেয়ে ভাল ফলাফলের কয়েকটি প্রোডাক্ট নিচে বলা হল-

০৫টি শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর নাম

১. Eva Naturals Vitamin C+ Serum

শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর

অ্যামাজন ওয়বসাইটের প্রায় ২৮,৫০০ জন কাস্টোমারের রিভিউ ডাটা পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, এই পণ্যের গড় রেটিং হল ৪.৪ স্টার। এর মাধ্যমে পণ্যটির গুনগত মান সহজেই অনুমেয়। এর প্রধান উপাদানসমুহ ভিটামিন সি, নিয়াসিনামাইড এবং রেটিনল যার প্রতিটিই চর্মরোগ বিশেষজ্ঞগণের সুপারিশের অন্তর্ভূক্ত।

২. Ambi Skincare Fade Cream, Oily Skin, 2 ox (56 g)

শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর

উপাদান: সক্রিয় উপাদানের মধ্যে এখানে রয়েছে হাইড্রোকুইনোন -২%, অকটিনোক্সেট-২%। এছাড়া নিষ্ক্রিয় উপাদানের মধ্যে Betaine, Cetyl Alcohol, Butylene Glycol, গ্লিসারিন ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

এই প্রোডাক্টের ব্র্যান্ডের নাম হল Ambi এবং পণ্যটি ক্রিম হিসাবে বাজারজাত করা হয়।

পণ্যের ধরণ: ক্রিম

এই ক্রিম যেভাবে কাজ করে তা নিম্নরুপ:

  • এর মুল উপাদান হাইড্রোকুইনোন প্রায় ৫০ বছর ধরে গোল্ড স্ট্যান্ডার্ড হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। হাইড্রোকুইনোন টাইরোসিনেজ নামের এক এনজাইমের প্রভাব নষ্ট করে যা মেলানিন পিগমেন্ট উৎপাদনে সহায়তা করে। সহজ হিসাব, যত কম মেলানিন উৎপাদন হবে, শরীরে কালো স্পট দূরীকরণে তত সহায়ক হবে।
  • এটি ত্বকের কালো দাগ বিলীন করতে কাজ করে।
  • এখানে আরোও রয়েছে সানক্রিন যা সূর্যালোকের প্রভাব থেকে মুক্ত রাখে।
  • এর মধ্যে উপস্থিত ভিটামিন ই ত্বক নরম ও মসৃন করতে সহায়তা করে।
  • এছাড়া, এখানে থাকে ময়েশ্চারাইজার যা ত্বক স্বাভাবিক রাখতে কাজ করে।

৩. Dark Spot Corrector by Olay

শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর

এটি অ্যামাজনে বহুল বিক্রি হওয় একটি প্রোডাক্ট যার রেটিং এর সংখ্যা এখন পর্যন্ত ৫০৮১ এবং গড় রেটিং হল ৪.৩। এখানে ৭২ জন ব্যবহারকারি তাদের মতামত ব্যক্ত করেছে। যা পণ্যটির গুনগত মান সম্পর্কে ভাল ধারণার বহি:প্রকাশ।

মূল উপাদান:

  • নিয়াসিনামাইড
  • গ্লিসারিন
  • এলুমিনিয়াম স্টার্চ
  • Panthenol
  • Polyethylene
  • Cyclopentasiloxane ইত্যাদি।

পণ্যটি ক্রিম হিসাবে বাজারজাত করা হয়। যার ওজন .২২ পাউন্ড।

৪. Urban Gabru Insta Glow Fairness Cream

শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর

এটি আপনার ত্বকের কালো অংশ সাদা করার কাজ ম্যাজিকের মত করে। যার সানক্রিণ সূর্যালোক থেকে ত্বকের সুরক্ষায় সহায়তা করে। এছাড়া, এটি acne নিয়ন্ত্রণেও ভূমিকা রাখে।

এছাড়া, এখানে আছে ময়েশ্চারাইজার যা ত্বকের শুষ্কতা দুর করে। এটি মান সম্পন্ন উপাদান দিয়ে তৈরি এবং এখানে সালফেট ও paraben মোটেও থাকে না।

এই ক্রিম প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি। তাই এটি ব্যবহারে সম্পূর্ণ নিরাপদ।

৫. Mamaearth Skin Correc Face Serum

শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর

শরীরের কালোদাগ দুর করার ক্রিম এর মধ্যে অ্যামাজনে বিক্রি হওয়া পণ্যের মধ্যে এটিও বেশ জনপ্রিয়। এই প্রোডাক্টের মাঝে কাস্টোমারের খুব ভাল ফিডব্যাক ও রেটিং রয়েছে।

এর মুল উপাদানের মধ্যে আছে নিয়াসিনামাইড যা কালো দাগ দুর করার ক্ষেত্রে ভাল ভূমিকা রাখে। এছাড়াও, এখানে আছে এন্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন বি-৩ যা কালো স্পট বিলীন করতে সহায়তা করে।

 

1 thought on “শরীরের কালো দাগ দুর করার ক্রিম এর নাম।”

Comments are closed.