ব্লুহোস্ট রিভিউ ২০২১: চলুন দেখে নেই এর সুবিধা-অসুবিধা!

ব্লুহোস্ট রিভিউ নিয়ে আজকের এ লেখা। আপনি কি জানেন বিশ্বের ২০ লক্ষেরও অধিক ওয়েব সাইট ব্লুহোস্ট কম্পানির হোস্টিং সার্ভিসের আওতায় রয়েছে! হ্যা, কথাটি সত্য তবে তার মানে এই নয় যে কম্পানিটি ওয়েব হোস্টিং জগতের সেরা। বরং এতটুকু বলা যায়, এটি অন্যতম সেরা কয়েকটি হোস্টিং প্রোভাইডারের মধ্যে অন্যতম একটি। এর চেয়ে বেশি বলাটা অতিরঞ্জিত হয়ে যাবে, তাই নয় কি?
তবে, ব্লুহোস্টে এত বিশাল কাস্টোমার সংখ্যা প্রমান করে, তারা একটি ভাল অবস্থানে রয়েছে। নি:সন্দেহে একটি প্রতিষ্ঠিত কম্পানি। তাদের সেবা মান সম্পন্ন।
এর বাইরেও বর্তমান প্রতিযোগীতামুলক বাজারের প্রেক্ষাপটে এর কিছু খারপ দিক যে একেবারেই নেই, তা বলা দুস্কর।
তাই চলুন, অদ্যকার এই ব্লুহোস্ট রিভিউ আর্টিকেলে কম্পানি কর্তৃক প্রদত্ত হোস্টিং সার্ভিসের খুটিনাটি কিছু বিষয় তুলে ধরি।
যে সব বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে

কম্পানি পরিচিতি

ব্লুহোস্ট কম্পানিটি ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠা লাভের পর এই সুদির্ঘ কালের মধ্যে হোস্টিং জগতের একটি অন্যতম সেরা অবস্থানে জায়গা তৈরি করে। এটি কয়েকটি ভাল প্রতিষ্ঠানের একটি বর্তমানে যেখানে বিশ লক্ষেরও অধিক ওয়েবসাইট হোস্ট করা আছে। এদের প্যাকেজ মুল্যও নাগালের বাইরে নয়। সার্বক্ষণিক কাস্টমার সার্ভিস, অসাধারণ হোস্টিং অবকাঠামো এবং ফ্রি ওপেন সোর্স সফ্টওয়ার এর সাথে সঙ্গতিপূর্ণ হওয়ায় কম্পানিটিকে আর পিছনের দিকে তাকাতে হয়নি।
আপনার ওয়েবসাইট বা অনলাইন সপের জন্য ব্লুহোস্ট বেশ কয়েকটি সেবা ও পণ্য প্রদান করে। যেমন সেয়ার হোস্টিং থেকে শুরু করে বিভিন্ন প্যাকেজের হোস্টিং এবং ওয়েবসাইট তৈরির টুলস। ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং এদেরকে আরোও জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে। তারা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের চাহিদা পূরণেও খুব গুরত্বের সাথে কাজ করে যাচ্ছে।
সর্বনিম্ন যে প্যাকেজ দিয়ে শুরু সেখানেও রয়েছে ফ্রি সিডিএন ও এসএসএল সুবিধা। এছাড়াও, ফ্রি হিসাবে পাচ্ছেন দৈনিক, সাপ্তাহিক ও মাসিক ভিত্তিতে ব্যাকআপ সুবিধা। এই সর্বনিম্ন প্যাকেজের দাম প্রতিমাসে $৩.৯৫ মার্কিন ডলার।

ওয়ার্ডপ্রেস কর্তৃক অনুমোদিত

আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাটফর্ম ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি করার পরিকল্পনা করে থাকেন, তাহলে ব্লুহোস্টের হোস্টিং সার্ভিসটি আপনার জন্য অধিকতর ভাল হবে। কারণ, ওয়ার্ডপ্রেস প্রতিষ্ঠান বিশ্বের মাত্র তিনটি হোস্টিং কম্পানি সমর্থন করেছে যার মধ্যে ব্লুহোস্ট একটি।
ব্লুহোস্টের ভিশন হল একটি তুলনামুলক ভাল ও নিরাপদ ওয়েব সার্ভিস মানুষের হাতে পৌঁছে দেওয়া। এই ভিশন অর্জন করতে গিয়ে কম্পানিটি ওপেন সোর্স প্রকল্পে বিনিয়োগে কার্পন্য করে না। যাতে, সকল বয়সের সকল মানুষ খুব সহজেই ওয়েব সার্ভিস ব্যবহার করে উপকৃত হতে পারে।

ব্লুহোস্ট রিভিউ – কিছু তথ্য

  • পারফর্মেন্স গ্রেড: A+
  • এভারেজ লোড টাইম: ১.৪৮ মিলি সেকেন্ড
  • এভারেজ রেসপন্স টাইম: ১.২৬ মিলি সেকেন্ড
  • ফ্রি ডোমেইন: একটি এক বছরের জন্য
  • ফ্রি এসএসএল: হ্যা
  • ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টলেশন : এক ক্লিকে
  • স্পিড: ৬৮৮ মিলি সেকেন্ড (এপ্রিল, ২০২০ থেকে মার্চ, ২০২১)
  • আপটাইম: ৯৯.৯৬% (এপ্রিল, ২০২০ থেকে মার্চ, ২০২১)
  • সাপোর্ট: ২৪/৭ লাইভ চ্যাট, ফোন, ইমেইল ও টিউটোরিয়ালের জ্ঞান ভান্ডার
  • অ্যাপস: ওয়ার্ডপ্রেস, জুমলা, ড্রুপাল, পিএইচপি বিবিসহ আরোও ৭৫টিরও অধিক ওপেন সোর্স
  • ফিচার: আনমিটারড ব্যান্ডউইথ, আনলিমিটেড ওয়েবসাইট এবং স্টোরেজ, এক বছরের জন্য একটি ফ্রি ডোমেইন, ফ্রি এসএসএল সার্টিফিকেট ও সিডিএন, স্প্যাম বিশেষজ্ঞ, ডোমেইন প্রাইভেসি, ৩০ দিনের মানি ব্যাক গ্যারান্টি, একক ক্লিক ইনস্টলেশন ইত্যাদি।
  • হোস্টিং প্ল্যান: শেয়ার, ওয়ার্ডপ্রেস, ভিপিএইচ, রিসেলার এবং ডেডিকেটেড সার্ভার
  • ওয়েবসাইট স্থানান্তর: একটির জন্য ফ্রি
  • দাম: মাসিক $২.৭৫ মার্কিন ডলার দিয়ে শুরু যার নবায়ন মাসিক $৮.৯৯ মার্কিন ডলার হিসাবে।

হোস্টিং প্যাকেজসমুহের নাম

শেয়ার হোস্টিং
এর ক্ষেত্রে এখানে চারটি প্যাকেজ রয়েছে যার নাম বেসিক, প্লাস, চয়েজ প্লাস এবং প্রো। প্যাকেজ গুলোর মুল্য আপনি কত বছর মেয়াদে কিনবেন তার উপর নির্ভর করে। যদি তিন বছর মেয়াদে সবচেয়ে কম দামের প্যাকেজটি বেছে নেন তাহলে এর মাসিক মুল্য দাড়াবে $২.৭৫ মার্কিন ডলার। কিন্ত মেয়াদ শেষে নবায়নের সময় আপনাকে এর রেগুলার প্রাইস অর্থাৎ $৮.৯৯ ডলার হিসাবে মুল্য পরিশোধ করতে হবে।
সবচেয়ে কমদামের প্যাকেজ যাকে বেসিক হিসাবে নামকরণ করা হয়েছে, এখানে আপনি শুধুমাত্র একটি ওয়েবসাইট রাখতে পারবেন। যার স্টোরেজ পরিমান ৫০ জিবি এসএসডি। কিন্তু এর পরের প্যাকেজগুলোতে আপনি অসংখ্য ওয়েবসাইট হোস্ট করতে পারবেন যার স্টোরেজ পরিমান আনলিমিটেড।
এদের শেয়ার হোস্টিং এর প্রতিটি প্যাকেজেই আপনি ফ্রি সিডিএন, ফ্রি এসএসএল সার্টিফিকেট এবং এক বছরের জন্য একটি ডোমেইন ফ্রি পাচ্ছেন।

শেয়ার হোস্টিং এর প্যাকেজসমুহের তুলনামুলক বিবরণি নিম্নরুপ:

[/fusion_text][fusion_table fusion_table_type=”1″ fusion_table_rows=”” fusion_table_columns=”” hide_on_mobile=”small-visibility,medium-visibility,large-visibility” class=”” id=”” animation_type=”” animation_direction=”left” animation_speed=”0.3″ animation_offset=””]

প্যাকেজের নামওয়েবসাইটের সংখ্যাস্টোরেজডোমেইন প্রাইভেসিঅটোব্যাকআপমাসিক মুল্য
বেসিক১টি৫০ জিবি – এসএসডিনাইনাই$২.৭৫
প্লাসআনলিমিটেডআনলিমিটেডনাইনাই$৫.৪৫
চয়েজ প্লাসআনলিমিটেডআনলিমিটেডফ্রিফ্রি$৫.৪৫
প্রোআনলিমিটেডআনলিমিটেডফ্রিফ্রি$১৩.৯৫

 

উপরের টেবিলে শেয়ার হোস্টিং এর দেখানো মুল্য তিন বছর মেয়াদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। আপনি যদি অপেক্ষাকৃত কম সময়ের মেয়াদে যেমন এক বছর বা এক মাসের জন্য ক্রয় করতে চান তাহলে প্যাকেজগুলির মুল্য বেড়ে যাবে।

মেয়াদ যত বেশী প্যাকেজ মুল্য তত কম, আবার মেয়াদ যত কম হবে প্যাকেজ মুল্যও তত বেশি হবে। বিষয়টি সব ওয়েব হোস্টিং কম্পানির জন্যই প্রযোজ্য।

এবারে চলুন ডেডিকেটেড হোস্টিং সম্পর্কে জেনে নেই।

ব্লুহোস্টের ডেডিকেটেড হোস্টিং সার্ভিসে তিনটি প্যাকেজ রয়েছে যাদের নাম স্ট্যান্ডার্ড, এনহেন্সড এবং প্রিমিয়াম। এই ধরণের হোস্টিং শুধ মাসিক ভিত্তিতে ক্রয় করতে হয়। এই প্যাকেজসমুহ এক বছর বা তিন বছর মেয়াদি নয়। তিনটি প্যাকেজেই সিপিইউ এর ক্ষমতা 4 cores @ 2.3 GHz হিসাবে কমন রয়েছে। তবে, স্টোরেজ, র‌্যাম, ব্যান্ডউইথ, আইপি এড্রেসের সংখ্যা প্যাকেজ ভেদে দামের পার্থক্য অনুযায়ি ভিন্ন রুপ।

ডেডিকেটেড হোস্টিং এর প্যাকেজসমুহ নিম্নরুপ

প্যাকেজের নামসিপিইউর‌্যাম (mirrored)ব্যান্ডউইথআইপি এড্রেসমাসিক মুল্য
স্টেন্ডার্ড4 cores @ 2.3 GHz৫০০ জিবি৫ টেরাবাইট৩টি$৭৯.৯৯
এনহেন্সড4 cores @ 2.3 GHz১ টেরাবাইট১০ টেরাবাইট৪টি$৯৯.৯৯
প্রিমিয়াম4 cores @ 2.3 GHz১ টেরাবাইট১৫ টেরাবাইট৫টি$১১৯.৯৯

 

এছাড়াও ব্লু হোস্টে ভিপিএইচ হোস্টিং আছে যার তুলনামুলক বিবরণ নিচে উল্লেখ করা হল:

প্যাকেজের নামসিপিইউর‌্যাম (mirrored)ব্যান্ডউইথআইপি এড্রেসমাসিক মুল্য
স্টেন্ডার্ড2 cores৩০ জিবি১ টেরাবাইট১টি$১৮.৯৯
এনহেন্সড2 cores৬০ জিবি২ টেরাবাইট২টি$২৯.৯৯
প্রিমিয়াম2 cores১২০ জিবি৩ টেরাবাইট৩টি$৫৯.৯৯

 

ব্লুহোস্টের সুবিধা সমুহ

১. ভাল আপটাইম

বছরের সবসময় ভাল আপটাইম পাওয়া যায় যা গড়ে ৯৯.৯৬%। যে কোন হোস্টিং কম্পানি নির্বাচনের পূর্বে আপটাইম ক্রাইটেরিয়া খুব গুরত্বপূর্ণ। কারণ, যদি আপনার ওয়েবসাইট ডাউন থাকে তাহলে ইউজারগন সেখানে প্রবেশ করতে পারে না। কাজেই ধারাবাহিকভাবে গ্রহণযোগ্য মাত্রায় আপটাইম থাকে এমন হোস্টিং কম্পানি খুঁজে নিতে হবে।

একটি রিভিউ স্টাডির ফলাফলে দেখা যায়, চল্লিশটি ওয়েব হোস্টিং কম্পানির গড় আপটাইম ৯৯.৯৩%। কাজেই আপনাকে এমন কম্পানিতে হোস্ট করতে হবে যার আপটাইম এর থেকে বেশি থাকে।

ব্লুহোস্ট কম্পানির বিগত এক বছরের ডাটা (এপ্রিল, ২০২০ হতে মার্চ, ২০২১)  পর্যালোচনা করে দেখা যায়, তাদের গড় আপটাইম হল ৯৯.৯৬%।

২. লোডিং স্পিড

ওয়েব হোস্টিং কম্পানির লোডিং স্পিড ১ সেকেন্ড থেকে ৩ সেকেন্ড হলে ৩২% পর্যন্ত বাউন্স রেট বৃদ্ধির সম্ভাবনা তৈরি হয়। এর ফলে ভিজিটরগন ওয়েবসাইট থেকে বের হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে ৩২%। ওয়েব সাইট লোড হতে সময় যত বেশি লাগে, ভিজিটরদের উক্ত সাইট থেকে বাউন্স হওয়ার পরিমান তত বেশি হবে।

ব্লুহোস্টের লোডিং স্পিড হল ৬৮৮ মিলি সেকেন্ড যা সুবিধাজনক পর্যায়ে আছে।

৩. মুল্য

ব্লুহোস্ট এর হোস্টিং প্যাকেজের প্রারম্ভিক মুল্য তেমন বেশি নয়, মাত্র $২.৭৫ মার্কিন ডলার দিয়ে শুরু। এই দাম দিয়ে একটি ওয়েবসাইট হোস্টিং এর জন্য যা যা প্রয়োজন আপনি সবই পেয়ে যাবেন। যেমন, আনমিটার ব্যান্ডউইথ, একটি ফ্রি এসএস এল সার্টিফিকেট, ৫০ জিবি এস এস ডি স্টোরেজ ইত্যাদি। এর বাইরেও রয়েছে ধারাবাহিকভাবে খুব ভাল গ্রহনযোগ্য মাত্রার আপটাইম এবং দ্রুত লোডিং স্পিড।

তথাপি সবচেয়ে কম মুল্যের এই প্যাকেজের কিছু সিমাবদ্ধতাও রয়েছে। যা ব্যাবহার করার সময় আরোও পরিস্কার হয়ে যাবে। তবে, যাত্রা শুরুর সময় এই প্যাকেজটি বেছে নিতে পারেন। পরবর্তিতে মুল্য সমন্বয় করে প্যাকেজ আপগ্রেড করার সুযোগ রয়েছে।

৪. সিকিউরিটি অপশন

ব্লুহোস্টের হোস্টিং প্যাকেজ বাজারে বিদ্যমান অন্যান্য কম্পানির তুলনায় সস্তা হওয়া সত্ত্বেও তারা নিরাপত্তা বিষয়ক ক্ষেত্রগুলিতে তেমন একটা ছাড় দেয়নি। সবচেয়ে কম দামের প্যাকেজেও আপনি পাচ্ছেন ফ্রি এস এস এল সুবিধা, ফ্রি সিডিএন বা ক্লাউডফেয়ার, একটি সিঙ্গেল ক্লিকেই ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টলেশন, আরোও অনেক কিছূ।

উচ্চতর প্যাকেজসমুহে স্প্যাম কন্ট্রোল এড অন, ডোমেইন প্রাইভেসি এবং সার্ভার ব্যাক আপ। এছাড়াও, রয়েছে কিছূ এডভান্সড সিকিউরিটি ফিচার যেমন সাইট লক যা ম্যালওয়ার প্রতিরোধে কাজ করে।

কোডগার্ড (codegurd) নামে আরেকটি প্রোটেকশন ব্যবস্থা আছে যা আপনাকে দিয়ে দৈনিক ভিত্তিতে ব্যাকআপ সুবিধা।

৫. সহজ ব্যবহার

নতুনদের জন্য খুব সহজেই ব্যবহার উপযোগি এর কন্ট্রোল প্যানেল। কিছু কিছু ওয়েব হোস্ট সার্ভিস আছে যেগুলি পুরাতন বা এডভান্সড ইউজারদের জন্য ভাল কিন্তু নতুনদের জন্য নয়। তবে, ব্লুহোস্ট এক্ষেত্রে ব্যাতিক্রম। এটি নতুনদের জন্য খুব ইউজার ফ্রেন্ডলি হিসাবে তৈরি।

এর কাস্টোমার পোর্টাল খুবই সুন্দর ও স্বচ্ছ। সি-প্যানেলের লে-আউট সহজেই বোধগম্য। ফলে একজন নতুন ইউজারের পক্ষেও ব্যবহারের সময় কোন সমস্যা হয়। নতুনরা খুব সহজেই সি-প্যানেল থেকে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করে নিতে পারে।

৬. মানি ব্যাক গ্যারান্টি

এখানে আপনি পাবেন ৩০ দিনের এই নিশ্চয়তা যা ব্লুহোস্ট কম্পানির সকল প্যাকেজের জন্যই সমভাবে প্রযোজ্য। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে আপনি একটি প্যাকেজ কিনে একমাস ব্যবহার করে দেখে নিতে পারেন। তাতে যদি আপনি সন্তুষ্ট না হন তাহলে খুব সহজেই আপনার কষ্টার্জিত টাকা রিফান্ড পেয়ে যাবেন।

তবে, ব্লুহোস্ট কম্পানির রিফান্ড শুধু হোস্টিং প্যাকেজের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। আপনি যদি তাদের থেকে কোন ডোমেইন বা কোন এড অন কিনেন, তখন রিফান্ড প্রযোজ্য হবে না।

আপনি ব্লুহোস্ট থেকে আপনার হোস্টিং প্যাকেজ কেনার সময় যদি ফ্রি ডোমেইন পেয়ে থাকেন, তাহলে রিফান্ডের সময় $১৫.৯৯ মার্কিন ডলার কেটে নিয়ে অবশিষ্ট টাকা আপনাকে রিফান্ড দিবে।

ত্রিশ দিন পার হয়ে গেলে আপনি রিফান্ড পাবেন না। এটি অন্যান কিছু কম্পানির মত কোন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা ছাড়াই রিফান্ড দেয় না। বিষয়টি ভাল করে বুঝে নিয়েই আপনি সাইন-আপ করতে অগ্রসর হবেন।

৭। কাস্টোমার সাপোর্ট

এখানে আপনি পাবেন ২৪/৭ অর্থাৎ সপ্তাহ, মাস ও বছরের প্রতিদিনই ২৪ ঘন্টা কাস্টোমার সেবা। যা তারা লাইভ চ্যাট, ফোন কল, ইমেইল টিকেটিং ইত্যাদির মাধ্যমে প্রদান করে থাকে। এছাড়াও এখানে রয়েছে বিশাল জ্ঞানের ভান্ডার যেখান থেকে আপনার সুনির্দিষ্ট প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পেতে পারেন। সচারাচর বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন থেকেও আপনার জানার বিষয়টি পেতে পারেন।

ব্লুহোস্টের কাস্টোমার সার্ভিসের রেটিং বা ফিড-ব্যাকও খুব ভাল।

৮। সাইট ট্র্যান্সফার

আপনার যদি ইতিমধ্যে কোন ওয়েবসাইট থাকে যা অন্য হোস্টিং কম্পানিতে হোস্ট করা তাহলে আপনি সেটি এখানে বিনা খরচে ট্র্যান্সফার করে নিতে পারবেন। তবে, একটির বেশি সাইট নয়।

এখানে ফ্রি সাইট ট্র্যান্সফারের বেলাতেও কিছু শর্ত প্রযোজ্য। যেমন, সাইটটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাটফর্মে তৈরি হতে হবে এবং এখানে সাইন-আপ করার ৩০ দিনের মধ্যে আপনাকে সাইট ট্র্যান্সফার বিষয়ে জানাতে হবে।

এজন্য আপনাকে যা করতে হবে- কাস্টোমার সাপোর্টের সাথে যোগাযোগ করা। সাইট মাইগ্রেশন ১-৩ দিনের মধ্যেই হয়ে যাবে।

৯. ওয়ার্ডপ্রেস কর্তৃক অনুমোদিত

ব্লুহোস্ট কম্পানির হোস্টিং সেবা ওয়ার্ডপ্রেস সংস্থা হতে অনুমোদিত তিনটি প্রতিষ্ঠানের একটি। বাকি দু’টি অনুমোদিত ওয়েব হোস্টিং কম্পানির নাম ড্রিম হোস্ট এবং সাইট গ্রাউন্ড। সবচেয়ে বেশি ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে তৈরি। যা সারা বিশ্বের মোট ওয়েবসাইটের ৪৪%।

ব্লুহোস্টের কিছু অসুবিধা

কম্পানিটির এতগুলো সুবিধার পাশাপাশি কিছু অসুবিধাও আছে। যদিও তাদের প্রারম্ভিক মুল্য কম দেখে আপনি খুশি হতে পারেন, তবে, দু:খের কথা হল ব্লুহোস্টে ওয়েব হোস্টিং এর নবায়ন চার্জ কিন্তু ততটা কম নয়।

চলুন এদের খারাপ কয়েকটি দিক সম্পর্কে আরোও বিস্তারিত জেনে নেই।

১. নবায়ন চার্জ বেশি

এখান থেকে হোস্টিং প্যাকেজ ক্রয়ের সবচেয়ে ভাল রাস্তা হল প্রথমবারে একটু বেশি সময় মেয়াদে প্যাকেজ কিনে নেওয়া। আপনি মাসিক, বাৎসরিক এবং তিন বছর মেয়াদে প্রথম সাইন-আপে হোস্টিং কিনতে পারেন। তবে, তিন বছরের জন্য কিনলে সবচেয়ে কম রেটে পাওয়া যাবে।

শেয়ার হোস্টিং এর বেলায় আপনি যদি মাসিক ভিত্তিতে বেসিক প্যাকেজ প্রথমে এক মাসের জন্য কিনেন তখন এর দাম হবে $৪.৯৫ মার্কিন ডলার। কিন্তু দ্বিতীয় মাসেই নবায়নের সময় আপনাকে $৯.৯৯ ডলার হিসাবে পরের মাসের জন্য গুনতে হবে।

অপরদিকে, যদি আপনি সবচেয়ে সস্তা তিন বছরের শেয়ার হোস্টিং এর বেসিক প্যাকেজটি কিনতে চান তাহলে আপনার মাসিক খরচ হবে $২.৯৫ ডলার। তিন বছর শেষে এর নবায়নের সময় মাসিক খরচ দাড়াবে $৮.৯৯ ডলার। যা নি:সন্দেহে অনেক বেশি।

চলুন নিচের টেবিল থেকে নবায়ন চার্জের তুলনামুল চিত্র দেখে নেই-

প্যাকেজের নামপ্রথম মুল্যনবায়ন মুল্য
শেয়ার হোস্টিং
বেসিক$2.75$৮.৮৯
প্লাস$৫.৪৫$১১.৯৯
চয়েজ প্লাস$৫.৪৫$১৬.৯৯
প্রো$১৩.৯৫$২৬.৯৯
ডেডিকেটেড হোস্টিং
স্টেন্ডার্ড$৭৯.৯৯$১১৯.৯৯
এনহেন্সড$৯৯.৯৯$১৫৯.৯৯
প্রিমিয়াম$১১৯.৯৯$২০৯.৯৯
ভিপিএইচ হোস্টিং
স্টেন্ডার্ড$১৮.৯৯$২৯.৯৯
এনহেন্সড$২৯.৯৯$৫৯.৯৯
প্রিমিয়াম$৫৯.৯৯$১১৯.৯৯

 

২. সীমাবদ্ধতা

এই কম্পানির সবচেয়ে কম দামের প্যাকেজের অধিক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। এখানে আপনি শুধু একটি ওয়েবসাইট হোস্ট করতে পারবেন। স্টোরেজের পরিমান সীমিত, মাত্র ৫০ জিবি। একমাত্র নিরাপত্তার সুযোগ হিসাবে আপনি পাচ্ছেন শুধু একটি ফ্রি এস এস এল সার্টিফিকেট।

কাজেই, যদি আপনার একাধিক ওয়েবসাইট থাকে এবং পাশাপাশি আপনি যদি অধিক সিকিউরিটি চান তাহলে সবচেয়ে কম দামের এই বেসিক প্যাকেজটি আপনার জন্য উপযোগি হবে না। এজন্য আপনাকে কম্পানিটির প্রাইসিং এর পরবর্তি স্তরে উঠতে হবে যা এর চেয়ে প্রায় দ্বিগুন ব্যয়বহুল।

যদিও, শুরুর প্যাকেজে প্রত্যেক ওয়েব হোস্টিং কম্পানিরই এমন কিছু সীমাবদ্ধতা থাকে, এটি শুধু মাত্র এই কম্পানির বেলায়, তা নয়। বিষয়টির উপর প্রতিটি কম্পানির মাঝেই প্রতিযোগিতা থাকে যে কে কত কম দামে কাস্টোমার সার্ভিস দিতে পারে।

এক নজরে কিছু তথ্য

  • ত্রিশ দিনের মানি ব্যাক গ্যারান্টি।
  • একটি মাত্র ওয়েবসাই বিনা খরচে মাইগ্রেট করা যাবে য ওয়ার্ডপ্রেসে হতে হবে। পাঁচটি পর্যন্ত ওয়েবসাইট এবং ২০টি ইমেইল একাউন্ট স্থানান্তরের ক্ষেত্রে আপনাকে $১৪৯.৯৯ ডলার দিতে হবে।
  • যেকোন প্যাকেজের সাথে এক বছরের জন্য একটি ডোমেইন ফ্রি যার নবায়ন ফি হল $১৫.৯৯ ডলার।
  • সহজেই সাইন-আপ করা যায়।
  • প্রধান প্রধান ক্রেডিট কার্ড এবং পে-পাল ব্যবহার করে পেমেন্ট দেওয়া যায়।
  • লুকায়িত বিষয় হিসাবে ডোমেইন নাম কিনলে কোন রিফান্ড নেই।
  • ডোমেইন ও হোস্টিং উভয়ের নবায়ন ফি বেশি।
  • সাইন-আপের সঙ্গে সঙ্গেই আপনার একাউন্ট সক্রিয় হয়ে যাবে।
  • কন্ট্রোল প্যানেল ও ড্যাশবোর্ড খুব ব্যবহার বান্ধব ও সহজ।
  • ওয়ার্ডপ্রেস, জুমলা ইত্যাদি সিএমএস খুব সহজে এক ক্লিকে ইনস্টল করা যায়।

আমারা কি আপনাকে সুপারিশ করব?

হ্যা, নিশ্চয়ই। কারণ একটি নির্ভরযোগ্য হোস্টিং প্রোভাইডার হিসাবে এটিকে আপনি এক বারের জন্য হলেও বেছে নিতে পারেন। তাদের সার্ভার স্পিড ভাল। আপনার অর্থের বিনিময়ে উপযুক্ত সেবা এখান থেকে আপনি পেতে পারেন।

 

1 thought on “ব্লুহোস্ট রিভিউ ২০২১: চলুন দেখে নেই এর সুবিধা-অসুবিধা!”

  1. hello!,I like your writing very
    much! proportion we be in contact extra about your article
    on AOL? I require an expert on this area to
    unravel my problem. Maybe that’s you!
    Having a look ahead to see you.

Comments are closed.